শুক্রবার, 14 জুলাই 2017 21:17

দ্রোহের অগ্নি

লিখেছেন 
ভোট এবং নাম্বার দিনঃ
(2 জন ভোট দিয়েছেন)
	  	দ্রোহের অগ্নি

অবাক বিশ্ব
       কঠিন দৃশ্য
       চৈতন্য হারায় মরু বাঁকে।
নিকষ কালো রাতে
        প্রতিটি প্রভাতে
        মৃত মানবতার ছবি আঁকে।

চলমান বিশ্ব
        প্রতিনিয়ত হচ্ছে নিঃস্ব
        বাতাসে ভাসে বারুদের গন্ধ
কোথায় মানবতা
        মানুষ নামের দেবতা
        মূক-কালা নাকি উদ্ভ্রান্ত অন্ধ।

কতবার চেঁচাই
        মানবতার দোহাই
        কালো চশমা পরিহিত বিশ্ব মোড়ল
মরছে মানুষ
        নেই কারো হুস
        মোড়লের চোখে ভীষণ খোড়ল।

দেখো না আরাকান
        যত খুশি মেরে যান
        সিরিয়ায় চলছে বেপরোয়া হামলা
ফিলিস্তিনে মরে
        কে বা খোঁজ করে
        ইসরাইলের বিরুদ্ধে চলে না মামলা।

নামে শুধু মুসলমান
        নেই মোদের ইমান
        লৌহ কবাট কোথায় পাবে
নেই নজরুল
        দেবে ভীমরুল
        কবিতার দাপটে বিশ্ব নাড়াবে।

ওরে ও ভাই
        এগিয়ে যাও ভয় নাই
        কলবে গেঁথো আল্লাহ নবীর নাম
হায়দারী হাঁক হাঁক্
        ডাক ওরে ডাক
        নবীজির চরণে হাজারো ছালাম।

জ্বলছি জ্বলবো
        হক কথা বলবো।
        উড়িয়ে দেরে বিজয় নিশান 
ওরে মারোয়াড়ী 
        ওঠা খোল্ তরবারি
        কল্লা তোদের করবো খানখান।

জ্বালা তোরা দ্রোহের অগ্নি
বিশ্বজয়ে এসো ভ্রাতা ভগ্নী
মৃত্যুকে কভু করি না ভয়
সামনে দেখবে বিশাল জয়।
© স্বত্ব সংরক্ষিত

146 বার পঠিত
মোঃ নাজমুল কবির

নিভৃতচারি কবি যিনি তাঁর মসির আঁচড়ে সামাজিক অবক্ষয়ের বাস্তব চিত্র অঙ্কন করে পাঠক সমাজে বেশ সমাদৃত হয়েছেন। কবি নাজমুল কবির প্রকৃত পক্ষে পহেলা জানুয়ারী উনিশশত ষাট সালে নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম থানার বড়াইগ্রামে এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। জন্মের পর থেকেই জীবন জীবিকার তাগিদে প্রতিটি পদে পদে হোঁচট খেয়েছেন। নিষ্ঠুর দারিদ্রতাকে জয় করে তিনি দেখিয়েছেন নিজের দৃঢ় আত্ম-প্রত্যয়ের দুঃসহ যন্ত্রনা। তিনি ছোট বেলা থেকেই লেখালেখি পছন্দ করতেন এবং কাপাসিয়া পাইলট হাই স্কুলে অধ্যয়নরত থাকাকালীন সময়েই লেখায় হাতে খড়ি। কাপাসিয়া পাইলট হাই স্কুল হতে এস. এস. সি. এবং কাপাসিয়া কলেজ থেকে এইচ. এস. সি. কৃতিত্বের সহিত পাশ করেন। পরবর্তী সময়ে তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে যোগদান করেন। সেনাবাহিনীর সামরিক বাহিনীর প্রশিক্ষণের পর ঢাকায় বদলী হন। পরবর্তীতে খুলনায় চাকুরীরত থাকাবস্থায় তাঁর লেখা কবিতা ও ছড়া স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় আই. এস. পি. আরের অনুমতি ব্যতিরেকে প্রকাশিত হওয়ার কারণে তাঁকে শোকজ করা হয়। পরিশেষে ঢাকায় চাকুরীরত থাকাকালীন অবস্থায় তাঁর লেখা কবিতা সেনাবাহিনী কর্তৃক প্রকাশিত সেনাবার্তায় প্রকাশিত হয় এবং ঐ সময়েই সামরিক গোয়েন্দা পরিদপ্তরের অনুমতিক্রমে বাংলাদেশ বেতার ও টিভির একজন তালিকাভূক্ত গীতিকার হন। তাঁর লেখা প্রকাশিত গ্রন্থের মাঝে রয়েছে উপন্যাস #হৃদয়ের মাঝখানে দেয়াল#, #এক বিন্দুতে ভালোবাসা# ও একক প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ #নির্ঝর ভালোবাসা#, #হোমিও মতে চিকিৎসা# হোমিও চিকিৎসা বিষয়ক বই প্রকাশ করা হয়েছে। এবার ২০১৬ বই মেলায় একটি ছড়ার বই #ভুতের বাসা# এবং কাব্যগ্রন্থ #প্রেম আসেনি# ও #কবিতার কারুকাজ# তাঁর প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ তাঁর নিজস্ব শৈলী মাধুর্যতার পরিচয় মেলে। তাঁর লেখা গান রেডিও ও টিভিতে নব্বই এর দশকে প্রচারিত হয়েছে। বর্তমানে #ভাবনার কবিতারগুলো# নামে একটি সিডিতে লেখা কবিতা এবং #একটাইতো ছিলো# গানের সিডিতে গানের সিডির মোড়ক উম্মোচিত হয়েছে। তিনি একাধারে একজন সাহিত্যিক ও অপরদিকে গাজীপুর২৪ডমকম প্রত্রিকার সম্পাদক এবং দৈনিক অপরাধ তথ্য পত্রিকার গাজীপুর জেলার ব্যুরো প্রধান। নবীন কবিদের প্রতি অগাধ ভালবাসা যার নিত্য দিনের সঙ্গী।

 

মন্তব্য প্রদান করুন

(*) মন্তব্য প্রদান করার জন্য অত্যাবশ্যকীয় তথ্য. HTML code is not allowed.