বৃহষ্পতিবার, 11 ফেব্রুয়ারী 2021 23:59

দাদুর ভীমরতি

লিখেছেন
লেখায় ভোট দিন
(0 টি ভোট)
                দাদুর ভীমরতি

দাদু আমার আলাভোলা
  চেহারাটা বেশ,
ভীমরতিতে পেয়েছে তাই
  কলপ করে কেশ।

চোখে না কি অল্প দেখে
   চশমা পরে তাই,
বয়স হলেও মনটা রঙিন
 বুঝতে পারি ভাই।

বাইরে ঘুরতে গেলো দাদু
   ফিরতে হলো রাত,
সুন্দরী এক নারী দেখে
  হাতে রাখলো হাত।

সেই সুন্দরী রেগে গিয়ে
  মারলো কষে চড়,
বাড়ি ফিরে বললো ওরে
  আমায় একটু ধর।

দাদুর কথা শুনে দাদির
  চোখে এলো জল,
বললো দাদি ভীমরতি তাই
  তোমার এমন ফল।            
            
21 বার পড়া হয়েছে
শেয়ার করুন
মো.শামীম হোসেন

মো.শামীম হোসেন ১৯৯৮ খ্রিস্টাব্দের ১৭ই নভেম্বর পঞ্চগড় জেলার সদর উপজেলার মাহান পাড়া গ্রামে এক মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা মো.হাফিজুল ইসলাম এবং মাতা মোছা.শরিফা বেগম। তাঁরা তিন ভাই এবং তিনি সকলের বড়। তিনি দেওয়ান হাট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০১৪ সালে মাধ্যমিক পরীক্ষায় জি.পি.এ.৫ পেয়ে উত্তীর্ণ হন এবং পঞ্চগড় মকবুলার রহমান সরকারি কলেজ থেকে ২০১৬ সালে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে কৃতিত্বের সাথে পাশ করেন।শৈশবকাল থেকে সাহিত্য ও সঙ্গীতের প্রতি গভীর অনুরাগের কারণে তিনি সাহিত্য রচনা শুরু করেন। উত্তরবঙ্গের শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ কারমাইকেল কলেজ-এর সবচেয়ে প্রাচীন ও ঐতিহ্যবাহী সংগঠন "স্পন্দন" নাট্য ও সাংস্কৃতিক সংগঠন এর সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন করছেন। তাঁর উল্লেখযোগ্য ছড়া ও কবিতার মধ্যে রয়েছে খোকার আবদার, হ-য-ব-র-ল, ধর্মের মিলন, কাম-মুক্তি, অনন্ত প্রেম, সুখের খোঁজে, বাংলার মুজিব, জীবনের গান ইত্যাদি। কারমাইকেল কলেজ কর্তৃক আয়োজিত 'সাহিত্য ও সংস্কৃতি সপ্তাহ' এ সাহিত্যালোচনা প্রতিযোগিতায় তিনি প্রথম স্থান অধিকার করেন। বর্তমানে তিনি কারমাইকেল কলেজ, রংপুর-এ বি.এ.(সম্মান), বাংলা বিভাগে অধ্যয়নরত।

এই বিভাগে আরো: « করোনা তৃষ্ণা »

মন্তব্য করুন

Make sure you enter all the required information, indicated by an asterisk (*). HTML code is not allowed.