শুক্রবার, 28 মে 2021 11:17

নীল কষ্ট নির্বাচিত

লিখেছেন
লেখায় ভোট দিন
(0 টি ভোট)
                যখন তুমি বৈশাখী বাতায়নে থালার মত গোল নিরেট চাঁদের পানে চেয়ে পুলকিত হও-
হয়তো ভুলে যাও
একটু দেরী করে হলেও, 
ফুসে উঠবে কালবৈশাখী ঝড়, 
তাণ্ডব চালাবে,
শত কষ্ট করে কেউ হয়তো এনে দিতে পারে
একটুখানি আগাম বার্তা।
সে ঝড় থামিয়ে দিতে পারবে না কেউ।
পৃথিবী নড়ে বসবে,
লন্ডভন্ড হবে সব।
যদি সাধ্য থাকে তাকে নিবৃত্ত করে দেখাতে পারো,
হতে পারো মহাবীর।

জাগতিক চেতনায় তুমি হও 
পানির মত স্বচ্ছ, 
পরিশুদ্ধ। 
তবুও নিজেকে দশে দশ 
দিবে কি?
তুমিতো  মানুষ। 
ভুলের উর্ধ্বে নও।

জীবনে তুমি একজনকে 
মানিয়ে চলতে পারো,
 সকলকে নয়।
জীবনের চারদিকটায় যখন দেয়াল তৈরী হয়
 তাকেই বলে সমাধি।
অবরুদ্ধ জীবনে যখন স্বাধীনতা খর্ব হয়
সেটাই মহাপ্রলয়।
আর নিজেকে যখন মাটির খুব কাছাকাছি মনে হয়
তখনই মানুষ বুঝে সে কতোটা নির্বোধ।

একটু ঘুরে দাঁড়াতে বড্ড ইচ্ছে করে, 
অথচ,
চারদিকে তাকিয়ে দেখি আশেপাশে কেউ নেই।
 একাকী পথচলায় বাড়ে আস্থাহীনতা,
বেড়ে যায় দৈনতা।

অসহায় মানুষগুলো তাই  উপরে তাকায় ধর্ম বিশ্বাসে।
অপেক্ষায় থাকে,
দেখতে চায় কখন
শূণ্যে নামবে সব জালিমদের কোঠা।
 
শেষ হবে চাপা কান্নার মতো নীল কষ্টগুলো!            
            
30 বার পড়া হয়েছে সর্বশেষ হালনাগাদ শুক্রবার, 11 জুন 2021 13:00
শেয়ার করুন
মনোয়ারা বেগম

মনোয়ারা বেগম ফরিদপুর জেলার সদরপুর থানার ৩৩ নং ডিগ্রিরচর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম মরহুম রোকনউদ্দিন খান। ও মিসেস সায়েরা বেগম। দুই ভাই দুই বোনের মাঝে তিনি সকলের বড়। উনার বাবা সেনাবাহিনীতে ই. এম. ই. কোরে চাকুরীরত থাকায় ১৯৭১ সালে যুদ্ধের সময় পাকিস্তানে ছিলেন। সেই সুবাদে তিনি পাকিস্তানে জন্মগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ স্বাধীন করার জন্য উনার বাবাকে বিভিন্ন প্রতিকূলতাকে নিজকে মানিয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছেন তা এক অবর্ণনীয় ইতিহাস। উনার একক কোন কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত হয়নি তবে আরশি সাহিত্য গ্রুপে (১) আরশি যৌথকাব্য সংকলন-১ (২) আরশি লিটল ম্যাগ এবং (৩) আরশি যৌথকাব্য সংকলন-২ প্রকাশিত হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Make sure you enter all the required information, indicated by an asterisk (*). HTML code is not allowed.