রবিবার, 04 জুলাই 2021 17:00

বিবেক নির্বাচিত

লিখেছেন
লেখায় ভোট দিন
(0 টি ভোট)
                সারাটা জীবন কাটলো যাদের 
    মাঠে-ঘাটে খেটে খেটে
আজকে তারাই পার করে দিন 
    বাড়ি বাড়ি হেঁটে হেঁটে।
দুপুরের তাপে হাত দুটি কাঁপে 
    বুঝে না-তো কেহ আর
বৃদ্ধ অর্বাচীন কাজ কর্মহীন 
   শক্তি-হীন দেহ তার।
বয়সের ভারে দেহটি এবারে 
    চলতে চায় না কভু
ক্ষুধার জ্বালায়  জীবন চলায় 
   শরীরে পারে না তবু।
ছিল না এমন তাদের জীবন 
   ছিল কর্ম ব্যস্ততায়
বেদখল হয়ে জান হাতে নিয়ে 
   আজ ভীত ত্রস্ততায়।

জমি চাষ করে সকল প্রহরে 
    ব্যস্ত হতো দুটি হাত
ক্ষুধায় কাতর বিধ্বস্ত অন্তর 
     কেটে যেত কত রাত।
অপরের জন্য জুগিয়েছে অন্ন 
     নিজে ভুখা থেকে কত
আধপেটা দেহ বুঝতো না কেহ 
     শুধু শ্রম ছিল ব্রত।
ফসলের মাঠে  দিনরাত খেটে 
     অনটনে যেত দিন
পেটে ক্ষুধা শত কাজ করে যেত 
     বয়সে ছিল নবীন।
কত খাটাখাটি   খড়কুটো কাটি
     জীবন সংগ্রাম যার
বার্ধক্যের জন্য আজি অকর্মন্য 
     করে শুধু হাহাকার।

চাষাভুষা বলে চোখের আড়ালে
    পড়ে আছে তারা সব
অবিচার করা   নিপীড়নে তারা
    কখনো করেনি রব।
সর্বহারা বলে দূরে ফেলে দিলে
    বিবেক দংশায় শুধু
বিত্তের বাহার করি কতো আর
    বহুরূপী মোরা সাধু।
অনাহারে যার   জীবন কাবার
    কী হবে তার আবার
পথে পড়ে রবে বেওয়ারিশ হবে
    আড়ালে রবে সবার।
গরিবের ছবি   জীবনের দাবি
    ভেবে দেখি একবার
দায়িত্ব আমার ভেবে দেখবার
    করি যেন প্রতিকার।

    #reza  ২৬/১১-২০২০ সুইডেন            
            
71 বার পড়া হয়েছে সর্বশেষ হালনাগাদ সোমবার, 05 জুলাই 2021 01:52
শেয়ার করুন
মাহমুদ রেজা

বর্তমানে সপরিবারে অভিবাসী মেরু প্রান্তের দেশ সুইডেনে। কারিগরী পেশায় চাকুরিজীবী লেজার নিয়ে। ভিটেবাড়ি বাংলাদেশের ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী উপজেলায়। শৈশব কৈশোর গ্রামে পার করে মাঝামাঝি যৌবনে দেশ ছেড়ে হয়েছি প্রবাসী। দেশ যেমন ভুলে থাকা যায় না ঠিক তেমনি হাজার স্মৃতি বিজড়িত শৈশব কৈশোর মনটাকে টেনে নিয়ে যায় দেশের মাটিতে। উচ্চ মাধ্যমিকের গণ্ডি পেরিয়ে কারিগরি শিক্ষার জন্য সাহিত্যের চর্চার অভ্যাস কোনদিনই ছিল না। ঘুনাক্ষরেও কখনো চেষ্টা করা হয়নি। প্রবাসের পড়াশোনা, আত্মপ্রতিষ্ঠার নিরবিচ্ছিন্ন শ্রম সাহিত্য চর্চা থেকে দূরেই রাখতে হয়েছে নিজেকে। আব্বার লেখার অভ্যাস ছিল কিছুটা কিন্তু তা মুকুলেই শেষ হয়েছিল বোধহয়। আব্বার জীবদ্দশায় সুযোগ হয়নি এ নিয়ে আলোচনার। নিজের সুপ্ত সম্ভাবনা আজ দেরিতে হলেও যা সৃষ্টি করতে পারছি, আব্বার অজানা রয়ে গেল। ছন্দের মাধুর্য্যতায় বাংলা কবিতা ঋদ্ব এবং সমৃদ্ধ, শ্রুতিমধুরতায় বিশ্বের সেরা ভাষা। ছন্দময় কবিতা আমার লেখায় প্রতিভাত হয়ে থাকে। প্রকাশিত লেখা "ছড়ার মেলা ; মন মুকুরের ভেলা । প্রকাশের পথে, হৃদয়ের নৈবেদ্য।

এই বিভাগে আরো: « পুণ্যে ভরো নিশাচর »

মন্তব্য করুন

Make sure you enter all the required information, indicated by an asterisk (*). HTML code is not allowed.