শুক্রবার, 28 জানুয়ারী 2022 20:42

ত্রি-ভূবন দর্শন নির্বাচিত

লিখেছেন
লেখায় ভোট দিন
(2 টি ভোট)
                ত্রি-ভূবন দর্শন 

স্বর্গ মর্ত্য পাতাল তোমার করেছি দর্শন।
স্বর্গতে দেখেছি কাজল-কালো যুগল সরোবর,
সরোবরের মাঝে নীলপদ্ম ফোটে,
পদ্মপাতা'য় টলমল টলমল করে ভালোবাসার জল নাচে।
নীচে হাসে মহানন্দে মহাবিশ্বের বিস্ময় 
রাঙা গোলাপদ্বয়! 

মর্ত্যের মাঠের ধারে যুগল কোমল সুডৌল পাহাড়, 
তারপরে বিস্তৃত সমতল;
পাতালে রয়েছে এক অতল সাগর, 
উত্তাল তরঙ্গের সাথে সেথা জোয়ার-ভাঁটা আসে; 
সমুদ্র-সৈকত জুড়ে মুগ্ধকর 
মনোরম কৃষ্ণাভ কাশবন।

অপার বৈচিত্রে ভরা ত্রিভূবন তোমার,
সম্যক দর্শনে মুগ্ধ আমার মন; 
তোমাকে এখন ভুলবো কেমন করে! 
তোমার বিরহে কাতর আমি সন্ন্যাসী এখন;
পাগলের মত যত্র-তত্র বেড়াচ্ছি ঘুরে।
ত্রি-ভূবনময়ী সুন্দরীতমা,  
বলো তো দেখি-তোমাকে আমি ভুলবো কেমন করে।            
            
90 বার পড়া হয়েছে
শেয়ার করুন
প্রকাশ চন্দ্র

প্রকাশ চন্দ্র জন্ম ১৯৬২ ইং ৪ঠা ডিসেম্বর । নিজস্ব চেম্বার "হোমিও প্রাকটিস সেণ্টার" (প্রধান চিকিৎসক) পিতা মৃত যোগেন্দ্র নাথ রায় । মাতা মৃত শৈলেশ্বরী দেবী রায় । তিন ভাই ও দুই বোনের মধ্যে সর্ব কনিষ্ঠ। ১৯৮২ সালে রংপুর হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ থেকে ডি.এইচ.এম.এস. ডিগ্রী অর্জন করেন । এক ছেলে, প্রেমপ্রদত্ত রায় এবং এক মেয়ে প্রীতিপ্রভা রায়। স্ত্রী চামেলী রাণী রায়, কিণ্ডারগার্ডেন স্কুলের টিচার ।

মন্তব্য করুন

Make sure you enter all the required information, indicated by an asterisk (*). HTML code is not allowed.